100205-F-2616H-040 A U.S. Army soldier assigned to Charlie Company, 82nd Airborne Division shakes the hand of a young Afghan child while on a dismounted patrol at a village in southern Afghanistan on Feb. 5, 2010. The U.S. Army and Canadian Forces Land Force Command are helping the Afghan National Army clear several villages of improvised explosive devices, weapons caches and illegal drugs. DoD photo by Senior Airman Kenny Holston, U.S. Air Force. (Released)

আন্তর্জাতিক মেইলঃ

২০১৭ সালে আফগানিস্তানে ৮,৪০০ সেনা মোতায়েন করবে আমেরিকা। মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাশ্টোন কার্টার কাবুল সফরে গিয়ে সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছেন। এর আগে বলা হয়েছিল, আগামী বছর আফগানিস্তানে ৫,৫০০ মার্কিন সেনা  মোতায়েন করা হবে। কিন্তু কার্টার বলেছেন, সামরিক পরিকল্পনায় কিছু পরিবর্তন আনার পর আফগানিস্তানে মোতায়েন করতে যাওয়া সেনার সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী গত শুক্রবার কাবুলে আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আগাম সতর্কতামূলক অভিযানে’ আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনীকে সহযোগিতা করবে এসব মার্কিন সেনা এবং এই সহযোগিতার কৌশলগত অনেক গুরুত্ব রয়েছে।

২০০১‌ সালের ৭ অক্টোবর তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশের নির্দেশে আফগানিস্তানে আগ্রাসন চালায় মার্কিন বাহিনী। কথিত সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধের আওতায় ওই আগ্রাসন চালিয়ে তালেবান সরকারকে উৎখাত করা হয়। কিন্তু সে ঘটনার দেড় দশক পর আজও  আফগানিস্তান থেকে পুরোপুরি মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করা হয়নি। ২০০৮ সালে বারাক ওবামা আমেরিকার প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণের আগে আফগান যুদ্ধ শেষ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি তা রক্ষা করেননি। বরং এত বছর পর আফগানিস্তানে নতুন করে আরো  হাজার হাজার সেনা মোতায়েনের ঘোষণা দিলেন তার প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই