বর্তমান পরিস্থিতি হলো, সুইডেনের বর্জ্য শোধনাগারগুলো বর্জ্যের অভাবে প্রায় বন্ধ হতে বসেছে। কারণ আগের মতো বর্জ্যই আর তাদের থাকছে না। এ কারণে, শোধনাগারগুলো সচল রাখতেই মূলত বর্জ্য আমদানির মতো বিস্ময়কর পদক্ষেপ নিতে হচ্ছে তাদের।

সুইডেন যে ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বর্জ্য পুড়িয়ে ফেলে, সেখান তৈরি করা হয় বিদ্যুৎও এবং তা সুইডেনের জাতীয় বিদ্যুতের সঙ্গে যোগ হয়ে যায়। বর্জ্য কমে যাওয়ায় শোধনাগারগুলো বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে এবং একই সঙ্গে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুতের জোগানও কিছুটা কমে গেছে।

জানা গেছে, সুইডেনের এই পদক্ষেপ একটি সাময়িক উদ্যোগ। পরিস্থিতি আবার স্বাভাবিক হলে বর্জ্য আমদানির পদক্ষেপ থেকে সরে যাবে তারা।

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই