৪৩ বছর বয়সেও দুই শিক্ষকের কাছে অভিনয় শিখছি: ইরেশ যাকের

post_image

ইরেশ যাকের

সিনেমা অথবা ওয়েব সিরিজে তাকে সবসময় ব্যতিক্রমী চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায়। সেই অভিনয় দেখে দর্শকরা মুগ্ধ হন। তবে নিজের অভিনয় নিয়ে তৃপ্ত নন ইরেশ যাকের। তাই নিজেকে আরও দক্ষ করে তুলতে দেশের দুই প্রখ্যাত অভিনয়শিল্পীর ছাত্র হয়েছেন তিনি।

বেশ কিছুদিন ধরেই নায়লা আজাদ নূপুর ও আজাদ আবুল কালামের কাছে অভিনয়ের গভীরের খুঁটিনাটি বিষয়গুলো শিখছেন ইরেশ। জানালেন তিনি নিজেই।

গতকাল বুধবার (৯ মার্চ) ‘গুণিন’ সিনেমার মুক্তি উপেক্ষে আয়োজিত প্রিমিয়ার শোতে এ কথা বলেন তিনি। ইরেশ যাকের বলেন, ‘মা আমাকে অভিনয়ের বিষয়ে সবসময় ফিডব্যাক দেন। বন্ধু বান্ধবও অনেক সময় বলে। একবার আমার এক বন্ধু বললো, ‘তোর অভিনয় দেখলে মনে হয় তুই চরিত্রে ঢুকিস না’। তখন মনে হলো চরিত্রে না ঢুকলে আসলে মেকি ভাবটা থেকে যায়। এটা দূর করতে চেষ্টা করা উচিত। সেটা যখন থেকে করছি দেখলাম যে অনেক উন্নতি হচ্ছে অভিনয়ে।’

কীভাবে অভিনয়ে উন্নতি হলো সে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার কাজের প্রস্তুতিতে আমি অনেক সময় দেওয়ার চেষ্টা করছি। বই পড়ে কিংবা ইউটিউব দেখে এবং অনুশীলন করে শেখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এছাড়া ৪৩ বছর বয়সে এসে আমি অভিনয়ের জন্য দু’জন শিক্ষকের দ্বারস্থ হয়েছি। গুণী দুই মানুষ আজাদ আবুল কালাম এবং আরেকজন নায়লা আজাদ নূপুরের কাছে অনেককিছু শিখছি। ওনারা আমাকে প্রচুর হেল্প করছেন ভালো অভিনয়ের ব্যাপারে।’

গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত ‘গুণিন’ সিনেমায় গুণিন বাড়ির বড় ছেলের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইরেশ যাকের। তার অভিনীত ‘মুখোশ’ সিনেমা হলে চলছে। এই মাসে আরেকটা সিনেমা মুক্তি পাবে পরিচালক আকরাম খানের পরিচালনায়। নাম ‘নকশি কাঁথার জমিন’।

এছাড়াও মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘বাড়ির নাম সাহানা’, ‘চাঁদের অমাবস্যা’ সিনেমা।

সকল খবর

সকল খবর পড়ুন